বেসিস সদস্যদের জন্য ঋণ সুবিধা চালু করলো ব্র্যাক ব্যাংক

বেসিস সদস্যদের জন্য ঋণ সুবিধা চালু করলো ব্র্যাক ব্যাংক

আইসিটি খাতের ব্যবসায়িদের জন্য বেসিস ও ব্র্যাক ব্যাংক দিগন্ত নামের একটি ঋণ সুবিধা চালু করেছে। শুধু বেসিস সদস্যরা ঋণ সুবিধাটি পাবেন।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) এর উদ্যোগে অনলাইন ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে সেবাটি উদ্বোধন করা হয়।

বেসিস সভাপতি জনাব সৈয়দ আলমাস কবীরের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর প্রাইভেট ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল এবং ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ব্র্যাক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও সেলিম আর এফ হুসাইন, বেসিসের সহ-সভাপতি (প্রশাসন) শোয়েব আহমেদ মাসুদ।

অনুষ্ঠানে সালমান ফজলুর রহমান বলেন, বেসিস-ব্র্যাক ব্যাংকের ‘দিগন্ত ঋণ সুবিধা’ দেশের আইসিটি খাতের ব্যবসায়িদের আর্থিক সংকট কাটিয়ে উঠে নতুন নতুন ব্যবসা-বাণিজ্যের সুযোগ তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এসএমই উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে কোনো প্রকার জামানত না নিয়ে বরং স্ট্রাকচারড অ্যাসেসমেন্ট পদ্ধতি অনুসরণ করে অধিক হারে ঋণ প্রদানের জন্য ব্যাংকগুলোর প্রতি তিনি আহ্বান জানান।

শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, বেসিস-ব্র্যাক ব্যাংক ‘দিগন্ত’ শুধুমাত্র একটি বিশেষ সুবিধা নয়, অন্যান্য সকল ক্ষেত্রের শক্তিশালী আর্থিক কাঠামোর আদর্শ। আমি বিশ্বাস করি যে, এটি একটি বিশাল উদ্যোগ।

বেসিস সভাপতি জনাব সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, আইসিটি খাতে অর্থায়নে ব্র্যাক ব্যাংক এগিয়ে আসায় আমরা কৃতজ্ঞতা জানাই। নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ৭% সুদে যে ঋণের ব্যবস্থা আছে তাতে নারী উদ্যোক্তার সংখ্যা বাড়বে। তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে অন্যান্য প্রথাগত আর্থিক সুবিধার পাশাপাশি বন্ড, ডিবেঞ্চারের প্রবর্তন করারও আহবান জানান।

সেলিম আর এফ হুসাইন বলেন, দিগন্ত শুধুমাত্র একটি ঋণ সুবিধাই নয়, এটি একটি পূর্ণাঙ্গ প্যাকেজ, যা ডিজিটাল বাংলাদেশ কার্যক্রমকে আরও এগিয়ে নিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে আমার বিশ্বাস।

বেসিস ও ব্র্যাক ব্যাংকের মধ্যে সাক্ষরিত এই সমঝোতা চুক্তি অনুযায়ী, শুধু বেসিসের সদস্য প্রতিষ্ঠানসমূহ ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ৯% সুদে ৫০ লক্ষ থেকে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবে। এই ঋণের জন্য কোনো জামানতের প্রয়োজন হবে না। পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় অন্যান্য ঋণ বা আর্থিক সুবিধা প্রাপ্তিরও সুযোগ থাকবে।

Recommended For You

About the Author: Techohelp

"Techohelp" একটি টিউটরিয়াল ভিত্তিক বাংলায় ব্লগ। যারা কম্পিউটার, ইন্টারনেট, ওয়েবসাইট এবং অনলাইন প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে চান তাদের জন্য Techohelp একটি দারুন প্লাটফরম। অনলাইনে ইনকাম বা ফ্রিলাঞ্চিং বিষয়ে জানতে ও শিখতে আগ্রহিদের কথা মাথায় রেখে, ওয়েবসাইটের সকল কন্টেন্ট এমন ভাবে লেখা হয় যেন আপনি নিজেই ঘরে বসে নিজের মতন সহজে শিখতে পারেন। ফেসবুকে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুনঃ https://www.facebook.com/Techohelp/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *