ফাংশন কী (function key) এর ৭১ টি কাজ জেনে রাখুন (F1 থেকে F12)

function key

কম্পিউটার কী-বোর্ডের F1 থেকে F12 পর্যন্ত কী গুলোকে ফাংশন কী বলে। প্রতিটি ফাংশন কী এর আলাদা আলাদা কাজ রয়েছে। আপনি যখনই কী-বোর্ডের ফাংশন কী প্রেস করবেন, তখনই সেটি আপনার জন্যে কোন না কোন কাজ করে দেবে। কখনো কখনো ফাংশন কী এর সাথে Shift, Ctrl কিংবা Alt এই কী-এর কম্বিনেশনে আলাদা কাজ করা যায়। আবার, কোন কোন সময় Windows কী-এর পাশে থাকা Fn কী এরসাথে যে কোন ফাংশন কী ভিন্ন ধরণের কাজ করবে।

আমাদের কাজকে সহজ করার জন্যে কম্পিউটারের কি-বোর্ড শর্টকাট ব্যবহার করতে পারি, অন্যদিকে ব্যবহার করতে পারেন এই সব ফাংশন কী। কী-বোর্ডের প্রতিটি ফাংশনই কী-ই তৈরি করা হয়েছে বিশেষ বিশেষ কাজ করার জন্যে। তবে, অপারেটিং সিস্টেমের ভার্শন ভেদে ফাংশন কী ভিন্ন ভিন্ন কার্য সম্পাদন করে থাকে।

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি উইন্ডোজ সেভেন ভার্শন ব্যবহার করেন, তবে F9 দিয়ে যে কাজ করতে পারবেন, উইন্ডোজ টেন-এ হয়তো সেটা না করে অন্য কাজ করতে পারবেন। অর্থাৎ, একটা ফাংশন কী-এর কাজ ভিন্ন অপারেটিং সিস্টেমে ভিন্ন হতে পারে। আসুন, আমরা ফাংশন কী-এর কমোন কাজ বা ব্যবহার গুলো জানি।

কীবোর্ডের ফাংশন কী এর কাজ

কী-বোর্ডের কী-গুলোর মাধ্যমে আমরা কম্পিউটার ব্যবহারকে আরও সহজ করে তুলতে পারি। প্রতিটি প্রোগ্রামের ক্ষেত্রেই কী-বোর্ড শর্টকাট রয়েছে। আর ফাংশন কী তো প্রায় সব প্রোগ্রামের ক্ষেত্রেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। আসুন, ফাংশন কী-এর ভিন্ন ভিন্ন ব্যবহার সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাক।

ফাংশন কী F1 এর কাজ

  • প্রায় সব অপারেটিং সিস্টেমেই যে কোনও প্রোগ্রামের বা সফটওয়্যারের জন্য সাহায্যকারী কি হিসেবে F1 ব্যবহার করা হয়। যেমন-আপনি ফটোশপের কিছু হেল্প নেবেন, তাহলে ফটোশপ সফটওয়্যার চালু করুন আর ফাংশন কী F1 চাপলে ফটোশপ সম্পর্কে সাহায্য পাবেন।
  • F1 প্রেস করে BIOS সেট আপে প্রবেশ করা হয়।
  • CMOS সেট আপে প্রবেশ করতেও F1 ব্যবহার করা হয়।
  • Windows Key + F1 প্রেস করলে Windows Support Center চালু হয়।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডের Reveal Formating অপশন ওপেন করতে Shift + F1 ব্যবহার করা হয়।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে Ctrl + F1 প্রেস করলে Task Pane চালু হয়।

ফাংশন কী F2 এর ৮ কাজ

  • যে কোনও ফাইল, ফোল্ডার কিংবা আইকনের নাম পরিবর্তণ (Rename) করতে F2 ব্যবহার করা হয়।
  • F2 প্রেস করে Bios এবং Cmos এ প্রবেশ করা যায়।
  • মাইক্রোসফট্ এক্সেলে F2 প্রেস করে Active Cell এডিট করা যায়।
  • Alt + F2 একসঙ্গে প্রেস করে মাইক্রোসফট্ এক্সেলে Save as অপশন ওপেন করা যায়।
  • মাইক্রোসফট্ এক্সেলে কমেন্ট বক্স অ্যাড করতে Shift + F2 একসঙ্গে ব্যবহার করা হয়।
  • মাইক্রোসফট্ অফিসে ডকুমেন্ট লাইব্রেরী ওপেন করতে Alt + Ctrl + F2 একসঙ্গে প্রেস করা হয়।
  • Ctrl + F2 প্রেস করলে মাইক্রোসফট্ অফিসে প্রিন্ট প্রিভিউ চালু হয়।
  • গান শোনা বা ভিডিও দেখার সময় Fn + F2 সাউন্ড মিউট করা যায়।

ফাংশন কী F3 এর ৭ কাজ

  • F3 চেপে মাইক্রোসফ্ট এজ, ফায়ারফক্স ওবং গুগল ক্রোম ব্রাউজারে সার্চ অপশন ওপেন করা যায়।
  • কম্পিউটারের কিছু কিছু প্রোগ্রামেও F3 প্রেস করলে সার্চ বক্স ওপেন হয়।
  • F3 চেপে কম্পিউটারের ড্রাইভ বা ফোল্ডারেও কোন কিছু সার্চ করতে ব্যবহার করা হয়।
  • Windows command line এ F3 প্রেস করলে সর্বশেষ কমান্ডটি রিপিট হয়।
  • MacOS X অপারেটিং সিস্টেমে F3 প্রেস করলে Mission Control ওপেন হয়।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে যে কোনও লেখা সিলেক্ট করে Shift + F3 প্রেস করলে সব ক্যাপিটাল লেটার স্মল লেটারে এবং স্মল লেটার ক্যাপিটাল লেটারে বদলে যাবে, আবার শব্দের প্রথম অক্ষর ক্যাপিটাল লেটারে রূপান্তরিত হবে।
  • মাইক্রোসফট্ আউটলুকে Windows Key + F3 প্রেস করলে Advanced Find উইন্ডো ওপেন হবে।

ফাংশন কী F4 এর ৭ কাজ

  • মাইক্রোসফ্ ওয়ার্ডে শেষ কাজটি রিপিট(last action performed Repeat) করতে F4 ব্যবহৃত হয়।
  • উইন্ডোজ এক্সপ্লোরার বা মাইক্রোসফট এজ এবং ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারে F4 প্রেস করলে Adress Bar ওপেন হয়।
  • Space Cadet and 3D Pinball সহ কিছু প্রোগ্রামে F4 প্রেস করে ফুলস্ক্রিণ মোড এ দেখা হয়।
  • Ctrl + F4 ব্যবহার করে কম্পিউটারের স্ক্রিনে থাকা যে কোনও প্রোগ্রাম বন্ধ করা যায়।
  • কোনও প্রোগ্রাম ওপেন না থাকলে Ctrl + F4 প্রেস করলে কম্পিউটারের Shut Down ডায়ালগ বক্স অপশন ওপেন হয়।
  • কিছু ল্যাপটপে Fn + F4 প্রেস করলে স্ক্রিণের ব্রাইটনেস কমে।
  • Fn + F4 কিছু কিছু ল্যাপটপে ভলিউম কমে।

ফাংশন কী F5 এর ৫ কাজ

  • নেট ব্রাউজিং এর সময় ওয়েব পেজ Refresh করতে F5 ব্যবহার করা হয়। Ctrl+F5 প্রেস করলে ওয়েব পেজ রিলোড হয়।
  • F5 প্রেস করলে যে কোনও ফোল্ডারে থাকা সব ফাইল Refresh করা হয়।
  • মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্টে F5 প্রেস করলে স্লাইড শো চালু হয়ে যায়।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে কোন শব্দ বা বাক্য খুঁজতে এবং রিপ্লেস করতে F5 প্রেস করে Find and Replace ডায়ালগ বক্স ওপেন করা হয়।
  • কিছু ল্যাপটপে Fn + F5 প্রেস করলে স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা কমে।

ফাংশন কী F6 এর ৪ কাজ

  • মজিলা বা গুগল ক্রোমসহ প্রায় সব ব্রাউজারের অ্যাড্রেসবারে যেতে এবং ওয়েব সাইটের লিংক সিলেক্ট করতে F6 প্রেস করা হয়।
  • F6 প্রেস করে ল্যাপটপে মাইক্রোফোনের ভলিউম কমান যায়।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডের বিভিন্ন ডকুমেন্টের মধ্যে যে কোন কাজের বিনিময় করতে F6 ব্যবহার করা হয়।
  • Ctrl + Shift + F6 প্রেস করে মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডের সক্রিয় এক ডকুমেন্ট থেকে আরেক ডকুমেন্টে যাওয়া যায়।

ফাংশন কী F7 এর ৬ কাজ

  • কিছু কিছু ল্যাপটপে F7 প্রেস করে বিল্ট ইন স্পিকার ভলিউম বাড়ানো যায়।
  • F7 প্রেস করে মজিলা ফায়াফক্সে Caret Browsing ওপেন করা যায়।
  • F7 প্রেস করে মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ড ডকুমেন্টের Grammar ও Spelling Check উইন্ডো ওপেন করা হয়।
  • Shift+F7 চেপে মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে কোনো নির্বাচিত শব্দের প্রতিশব্দ, বিপরীত শব্দ, শব্দের ধরন ইত্যাদি জানার জন্য ডিকশনারি চালু করা হয় ।
  • মাইক্রোসফট্ অফিসে Research উইন্ডো ওপেন করতেও Shift + F7 প্রেস করা হয়।
  • Fn + F7 প্রেস করে কিছু ল্যাপটপে ডিসপ্লে স্কিম এবং সেকেন্ড স্ক্রিণ অপশন ওপেন করা যায়।

ফাংশন কী F8 এর ৩ কাজ

  • সচরাচর Windows Recovery system এ যেতে F8 ফাংশন কী-টি ব্যবহৃত হয়।
  • F8 প্রেস করে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের কম্পিউটারকে সেফ মুডে স্টার্ট করা যায়।
  • MAC অপারেটিং সিস্টেমে সব ধরণের ওয়ার্কস্পেসে ইমেজের থাম্বনেইল ওপেন করতে F8 প্রেস করা হয়।

ফাংশন কী F9 এর ৪ কাজ

  • Windows Setup দেয়ার সময় এই কি চাপ দিয়ে Fast Boot ডিভাইস CD Rom দেখানো যায় ।
  • Microsoft Outlook ও Siebel CRM সহ বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন থেকে মেইল পাঠানো ও রিসিভ করতে F9 ব্যবহৃত হয়।
  • F9 প্রেস করে মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে ডুকমেন্ট Refresh ও আপডেট করা যায়।
  • F9 কিছু ল্যাপটপের ক্ষেত্রে ব্রাইটনেস কমাতে কাজ করে থাকে।
  • ম্যাক অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহৃত অ্যাপল কম্পিউটারে Mission Control ওপেন করতে একসঙ্গে Fn key + F9 ব্যবহার করা হয়।

ফাংশন কী F10 এর ৬ কাজ

  • উইন্ডোজ পিসিতে ইন্টারনেট ব্রাউজার বা যে কোনও অ্যাপ্লিকেশনের Menu Bar অ্যাক্টিভ করা যায় F10 ফাংশন কী ব্যবহার করে।
  • এইচপি, সনি ও কমপ্যাক ব্র্যান্ডের ল্যাপটপে hidden recovery partition এর অ্যাক্সেস পেতে F10 কাজ করে থাকে।
  • F10 প্রেস করে কিছু কম্পিউটারের বায়োস সেট আপে প্রবেশ করা যায়।
  • কিছু কম্পিউটারের স্ক্রিন ব্রাইটনেস বাড়াতে F10 ব্যবহৃত হয়।
  • ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমে সবগুলো অ্যাক্টিভ প্রোগ্রাম দেখতে হলে F10 প্রেস করতে হয়।
  • কম্পিউটারের যে কোন হাইলাইট আইকন বা ফাইল এবং ব্রাউজার লিংকে ডাবল ক্লিক যে কাজ করে, ঠিক একই কাজ করে Shift + F10 ফাংশন কী।

ফাংশন কী F11 এর ৫ কাজ

  • F11 প্রেস করে যে কোনও ব্রাউজারে উইন্ডোটিকে ফুলস্ক্রিন করতে এবং নরমাল মুডে আনতে এই বাটনটি চাপলেই হবে।
  • F11 ফাংশন কী প্রেস করে eMachines, Gateway আর Lenovo ব্র্যান্ডের ল্যাপটপে hidden recovery partition অ্যাক্সেস করা যায়(ডেল কম্পিটারের জন্য প্রযোজ্য)।
  • ম্যাক অপারেটিংয়ে সব ওপেন ফাইল হাইড করতে এবং ডেস্কটপ শো করতে F11 প্রেস করা হয়।
  • Shift + F11 প্রেস করে মাইক্রোসফট্ এক্সেলে নতুন ওয়াকশিট ওপেন করা যায়।
  • মাইক্রোসফট্ এক্সেলে নতুন Macro ওয়ার্কশিট ওপেন করতে Ctrl + F11 ব্যবহার করা হয়।

ফাংশন কী F12 এর ৯ কাজ

  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে যে কোন ফাইল Save as উইন্ডো ওপেন করতে F12 ফাংশন কী ব্যবহৃত হয়।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে ডকুমেন্ট ওপেন করতে Ctrl + F12 প্রেস করতে পারেন।
  • মাইক্রোসফট্ অফিসে প্রিন্ট উইন্ডো খুলতে Shift + Ctrl + F12 প্রেস করতে পারেন।
  • মাইক্রোসফট্ ওয়ার্ডে Ctrl + S এর পরিবর্তে Shift + F12 প্রেস করে ডকুমেন্ট সেভ করতে পারেন।
  • Microsoft Expression Web এ পেজ প্রিভিউ দেখতে প্রেস করতে পারেন F12 কী।
  • বেশিরভাগ ব্রাউজারের ক্ষেত্রে Developer Tool ওপেন করতে F12 ব্যবহার করা হয়।
  • পরিচিত সব ব্রাউজারেই Opens Inspect Element ওপেন করতে F12 এর ব্যবহার রয়েছে।
  • Firebug ব্রাউজারের Debug টুল ওপেন করতে ব্যবহার করতে পারেন F12 ফাংশন কী।
  • ম্যাক কম্পিউটারে যে কোনও প্রোগ্রামের ড্যাশবোর্ড শো করা ও লুকিয়ে রাখার জন্যে F12 বহুল ব্যবহৃত।
  • কম্পিউটারে শুধু F12 চেপে বাংলা থেকে ইংরেজি বা ইংরেজি থেকে বাংলা মুডে যাওয়া যাবে। ল্যাপটপে fn+f12 চাপতে হবে।

শেষ কথা

বর্তমান সময়ের সকল ধরনের কী-বোর্ডে ব্যবহৃত ফাংশন কী-গুলোর সকল ব্যবহার তুলে ধরার চেষ্টা করেছি এই লেখায়। এরপরও আপনার যদি মনে হয় যে কোন একটি ফাংশন কী এর কাজ উল্লেখ করা হয়নি, তবে কমেন্টের মাধ্যমে সেই কী বা বাটনটি সম্পর্কে আমাদের জানান, আমরা অবশ্যই সেটি যুক্ত করে লেখাটি আপডেট করে দেবো।

Recommended For You

About the Author: Techohelp

"Techohelp" একটি টিউটরিয়াল ভিত্তিক বাংলায় ব্লগ। যারা কম্পিউটার, ইন্টারনেট, ওয়েবসাইট এবং অনলাইন প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে চান তাদের জন্য Techohelp একটি দারুন প্লাটফরম। অনলাইনে ইনকাম বা ফ্রিলাঞ্চিং বিষয়ে জানতে ও শিখতে আগ্রহিদের কথা মাথায় রেখে, ওয়েবসাইটের সকল কন্টেন্ট এমন ভাবে লেখা হয় যেন আপনি নিজেই ঘরে বসে নিজের মতন সহজে শিখতে পারেন। ফেসবুকে আমাদের সাথে যুক্ত থাকুনঃ https://www.facebook.com/Techohelp/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *